গরম চা ক্যান্সারের কারণ-Hot tea causes cancer

hot-tea

গরম চা ক্যান্সারের কারণ-Hot tea causes cancer

গরম চা Oesophageal ক্যান্সারের কারণ

গরম চা ক্যানসারকে ডেকে আনছে!Hot tea- Calling cancer!

প্রত্যেকদিন ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তার থেকে বেশি মাত্রায় গরম সাতশো মিলিলিটার চা বা অন্য পানীয় যদি কেউ পান করেন, তা হলে তার খাদ্যনালীর ক্যান্সারের আশঙ্কা ৯০% হয়ে যায়।
যে কোনও গরম পানীয়ের ক্ষেত্রেই বিষয়টি প্রযোজ্য।

আপনি কি চা খুব গরম অবস্থায় খেতে ভালোবাসেন? তা হলে সাবধান কারণ একটি সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, অতিরিক্ত গরম চা খাওয়া ইসোফেগাস বা খাদ্যনালীর ক্যান্সারকে ডেকে আনতে পারে। গবেষণায় দেখানো হয়েছে, যারা নিয়মিত ৭৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বা তার বেশি গরম চা পান করেন, তাদের এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে।

হাইলাইট

অতিরিক্ত গরম চা খাওয়া ইসোফেগাস ক্যান্সারকে ডেকে আনতে পারে।চা তৈরি করার পরে অন্তত চার মিনিট রেখে, ঠান্ডা করে খান।

তবে চা তৈরি করার পরে অন্তত চার মিনিট রেখে, ঠান্ডা করে তারপরে খেলে এ ধরনের ক্যানসারের সম্ভাবনা অনেকটাই কমে যায় কারণ গরম চা আমাদের গলা থেকে পেটে পৌঁছয়। অতিরিক্ত গরম অবস্থায় তা যে অংশের মাধ্যমে যায় সেই অঞ্চলের ক্ষতি করে দিতে পারে।

চা বিশ্বজুড়ে একটি সাধারণ পানীয়। গ্রীষ্ম বা শীত হোক, আমরা সকলেই একটি উষ্ণ কাপ চা উপভোগ করতে চাই। আমাদের মধ্যে অনেক এক বারে এক পাইপিং গরম কাপ চা পান করে। তবে বিজ্ঞান বলছে যে চা প্রেমীরা তাদের পানীয়গুলি কিছুটা শীতল হতে দেয় না তাদের খাদ্যনালী ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি হতে পারে।

কেন এটি ক্ষতিকারক?
ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ ক্যান্সারে প্রকাশিত এক দশক দীর্ঘ গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে যে লোকেরা প্রচুর চা পান করে এবং বেশিরভাগই এটি খুব গরম থাকতে পছন্দ করে- 60 ডিগ্রির উপরে ।

এমনকি বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার ক্যান্সার সম্পর্কিত গবেষণা সংস্থা স্পষ্ট করে জানিয়েছে যে 65 ডিগ্রি সেলসিয়াস এর উপরে খুব গরম পানীয় পান করা মানুষের পক্ষে “সম্ভবত কার্সিনোজেনিক“probably carcinogenic” for a human being.

আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটি-র সাম্প্রতিক স্টাডিতে যে তথ্য উঠে এল, তা বেশ বিপজ্জনক৷ রিপোর্ট বলছে, গরম চা কণ্ঠনালীর ক্যান্সারের কারণ৷ গরম চায়ে কণ্ঠনালীতে ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায় ৯০ শতাংশ৷ যাঁরা কম চা খান বা ঠান্ডা করে চা খান, তাঁদের ক্ষেত্রে এই ঝুঁকি প্রায় নেই বললেই চলে৷

গবেষকরা জানাচ্ছেন, ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি গরম চা কোনও ব্যক্তি যদি দিনে ৭০০ এমএল চা পান করেন, তা হলে কণ্ঠনালীর ক্যান্সারের ঝুঁকি ৯০ শতাংশের বেশি৷ উত্তর-পূর্ব ইরানের ৫০ হাজার মানুষের উপর এই গবেষণা চালানো হয়৷

আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির গবেষক ও এই সমীক্ষার প্রধান ফারহাদ ইসলামির কথায়, ‘বহু মানুষ গরম চা পছন্দ করেন৷ কিন্তু খুব গরম চা কণ্ঠনালী নিতে পারে না৷ ফলে তা ক্যান্সারের দিকেই এগোয়৷ শুধু চা নয়, গরম কফি-সহ যে কোনও গরম পানীয়ই ক্যান্সার ডেকে আনে গলায়৷ তাই খানিক ঠান্ডা করে চা খাওয়াই বুদ্ধিমানের৷’

পৃথিবীতে যত ধরনের ক্যান্সার হয়, তার মধ্যে অষ্টম সবচেয়ে সাধারণ ক্যান্সার হল কণ্ঠনালী বা গলায় ক্যান্সার৷ প্রতি বছর ৪ লক্ষের বেশি মানুষের মৃত্যু হয় এই ক্যান্সারে৷ গরম চা, কফি ছাড়াও ধূমপান, মদেও গলায় ক্যান্সারের সম্ভাবনা বেড়ে যায়৷

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপের দেশগুলিতে সাধারণত ৬৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি গরম চা মানুষ খান না৷ কিন্তু রাশিয়া, ইরান, তুরস্ক ও দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলিতে অত্যন্ত গরম চা পানের প্রচলন রয়েছে৷ তাই ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কম গরম চা পানেই জোর দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা৷